সংবাদ :
জাতীয় : জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত- বাংলাদেশের আকাশে আজ পবিত্র জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা গেছে, ১০ জুলাই রবিবার সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত হবে ইসলামিক বিশ্ব : আরাফাতে খুতবা দিবেন শায়খ ড. মুহাম্মাদ আবদুল করীম , হজের খুতবা সরাসরি সম্প্রচার হবে বাংলাসহ ১৪ ভাষায় আন্তর্জাতিক : আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় ৩য় স্থান অর্জনকারী সালেহ আহমদ তাকরিমকে সংবর্ধনা প্রদান করল ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন

  • টেক্সট সাইজ
  • A
  • A
  • A
  • |
  • রং
  • C
  • A
  • A
  • A

ই'তিকাফে বসতে ইচ্ছুক ভাই-বোনদের জন্যে পরামর্শ:
প্রিন্ট
প্রকাশঃ : রবিবার ১৮/০৬/২০১৭

ই'তিকাফে বসতে ইচ্ছুক ভাই-বোনদের জন্যে 

দশটি পরামর্শ:

১. ই'তিকাফ অর্থ হচ্ছে, অবস্থান করা, বিচ্ছিন্ন হওয়া, নিঃসঙ্গ হওয়া৷ বান্দা ই'তেকাফে বসবে একমাত্র আল্লাহ পাকের সঙ্গে সুনিবিড় সম্পর্ক গড়ে তোলার জন্যে৷ দুনিয়ার সব ঝামেলা থেকে বিচ্ছিন্ন এবং নিঃসঙ্গ হয়ে এই দশদিনের জন্যে মসজিদে আল্লাহর মেহমান হওয়াই ই'তিকাফের দাবি৷ 

 

তবে যদিও ই'তিকাফে ল্যাপটপ বা মোবাইল নিয়ে প্রবেশ করলে বা ব্যবহার করলে, পত্রিকা কিংবা ইন্টারনেট ব্যবহার করলে ই'তিকাফ নষ্ট হবে না৷ কিন্তু আদবের খেলাফ এবং অনুচিত হবে, তাতে কোনো সন্দেহ নেই৷ অযথা সময় নষ্ট হবে৷ ই'তেকাফের মূল উদ্দেশ্য বিঘ্নিত হবে৷ তাই সওয়াবও কম হবে নিঃসন্দেহে৷ বেশ থেকে বেশ মোবাইল সঙ্গে রাখা যেতে পারে৷ শুধু রিসিভ করবেন৷ প্রয়োজনীয় কথা সেরে রেখে দিবেন৷ 

 

২. নিয়ত করেছেন ই'তিকাফে বসবেন, কিন্তু খাবার এনে দেবার মানুষ নেই৷ কোনো অসুবিধা নেই৷ আপনার জন্যে বাসায় বা বাড়িতে গিয়ে খাবার নিয়ে আসার সুযোগ আছে৷ খাবার আগে প্রস্তুত রাখতে বলবেন৷ তড়িৎ গিয়েই নিয়ে আসবেন৷ পথে কিংবা বাসায় সময় নষ্ট করবেন না৷ এমতাবস্থায় আপনার ই'তিকাফ ভঙ্গ হবে না৷ তবে ঘরে কিংবা পথে অন্য কাজে জড়িত হলে ই'তিকাফ ভেঙ্গে যাবে৷

 

৩. মসজিদের সংযুক্ত গোসলখানা, যা মসজিদের ভিতরের অন্তর্ভুক্ত নয়৷ তাই জুমুআ বা শারীরীক প্রশান্তির জন্যে গোসলখানা বা অযুখানায় গিয়ে গোসল করা ই'তিকাফরত অবস্থায় জায়েয নয়৷ তবে ইস্তেনজা সেরে ওযু করতে আসার সময় ওযু করতে যত সময় লাগে, এতটুকু সময়ের ভেতর সারা শরীরে দুই-তিন মগ পানি ঢেলে দিতে পারেন৷ এতে করে ওযুও আদায় হয়ে গেলো, সংক্ষিপ্ত গোসলের কাজও সারা হয়ে গেলো৷ তবে লুঙ্গি ধুয়ার জন্যে আলাদা সময় ব্যয় করা যাবে না৷ তবে ফরয গোসলের ব্যাপারটি এখানে স্বতন্ত্র৷ 

 

৪. মসজিদ মনে করে যদি মসজিদের মূল সীমানার বাইরে চলে যান, যা প্রকৃতপক্ষে মসজিদ নয়, তাহলে ই'তিকাফ ভঙ্গ হয়ে যাবে৷ তাই সতর্কতামূলকভাবে ই'তিকাফে বসার পূর্বে মসজিদের (শুধু যে অংশ নামাযের জন্যে নির্ধারিত) মূল সীমানা ভালোভাবে জেনে নেওয়া উচিত৷ মনে রাখতে হবে, মসজিদের সিড়ি, ইমাম সাহেবের হুজরা, ওযুখানা, মক্তবঘর এ স্থানগুলো মসজিদের মূল সীমানার অন্তর্ভুক্ত নয়৷

 

৫. মসজিদের স্বাভাবিক নিয়মের বাইরে নিজ প্রয়োজনে মসজিদের লাইট, ফ্যান ব্যবহার করেছেন৷ মোবাইল চার্জ দিয়েছেন৷ ই'তিকাফ শেষ করে বের হওয়ার সময় এই দশদিনের অতিরিক্ত বিল অনুমান করে মসজিদের দানবাক্সে দিয়ে আসবেন৷

 

৬. ই'তিকাফে বসে কিছু না পড়ে একেবারে মুখ বন্ধ করে রাখা মাকরূহ৷ অতিরিক্ত কথাবার্তা ও গল্পগুজব করাও মাকরূহ৷ তাই অনর্থক গল্পগুজবে সময় নষ্ট করা ই'তিকাফের উদ্দেশ্যের বিপরীত হওয়ায় মু'তাকিফের জন্যে তা অবশ্যই পরিত্যাজ্য৷

 

৭. ই'তিকাফ অবস্থায় কেউ সাক্ষাতের জন্যে এলে তার সঙ্গে কথা বলা, কুশল বিনিময় করা জায়েয আছে৷ তবে খেয়াল রাখতে হবে, যেন অনর্থক কথাবার্তা না হয়৷

 

৮. ই'তিকাফের ফযীলত কেবল পুরুষদের জন্যে নির্দিষ্ট নয়৷ বরং নারীরাও ই'তিকাফের ফযীলতের অংশীদার৷ বিবাহিতা হলে স্বামীর অনুমতি ছাড়া ই'তিকাফে বসা ঠিক নয়৷ স্বামীদেরও উচিত অকারণে স্ত্রীদেরকে এই ফযীলত থেকে বঞ্চিত না করা৷

 

৯. নারীরা মসজিদে নয়, নিজেদের ঘরের নির্দিষ্ট ইবাদতের স্থানে ই'তিকাফে বসবেন৷ ইবাদতের জায়গা নির্দিষ্ট না থাকলে ই'তিকাফের জন্যে একটি জায়গা নির্দিষ্ট করে নিবেন৷ খাবার-দাবার এখানেই সারবেন৷ শরীয়ত সমর্থিত কারণ ছাড়া এই জায়গা ছেড়ে অন্যত্র যেতে পারবেন না৷ ই'তিকাফের জায়গা ছেড়ে ঘরের অন্য জায়গাতে গেলেও ই'তিকাফ ফাসিদ হয়ে যাবে৷ স্বামী-স্ত্রী একসঙ্গে থাকতে পারলেও স্বামী-স্ত্রীসূলভ ক্রিয়াকলাপ থেকে বিরত থাকতে হবে৷ যদি হয়েই যায়, তাহলে ই'তিকাফ ভঙ্গ হয়ে যাবে৷ 

 

১০. যে কোনো কারণে ই'তিকাফ ভঙ্গ হয়ে গেলে পরবর্তীতে রোযাসহ কেবল একদিনের ই'তিকাফের কাযা করতে হবে৷

৬২৬

কোন তথ্যসূত্র নেই

আপনার জন্য প্রস্তাবিত

ইসলামিক ফাউন্ডেশন

To preach and propagate the values and ideals of Islam, the only complete code of life acceptable to the Almighty Allah, in its right perspective as a religion of humanity, tolerance and universal brotherhood and bring the majority people of Bangladesh under the banner of Islam

অফিসিয়াল ঠিকানা: অফিসিয়াল ঠিকানা : ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ, আগারগাঁও, শের-এ- বাংলা নগর, ঢাকা -১২০৭