সংবাদ :
জাতীয় : জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত- বাংলাদেশের আকাশে আজ পবিত্র জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা গেছে, ১০ জুলাই রবিবার সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত হবে ইসলামিক বিশ্ব : আরাফাতে খুতবা দিবেন শায়খ ড. মুহাম্মাদ আবদুল করীম , হজের খুতবা সরাসরি সম্প্রচার হবে বাংলাসহ ১৪ ভাষায় আন্তর্জাতিক : আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় ৩য় স্থান অর্জনকারী সালেহ আহমদ তাকরিমকে সংবর্ধনা প্রদান করল ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন

  • টেক্সট সাইজ
  • A
  • A
  • A
  • |
  • রং
  • C
  • A
  • A
  • A

১৫. কবিরা গুনাহ
প্রিন্ট
প্রকাশঃ : মঙ্গলবার ১০/০৪/২০১৮

জিহাদের ময়দান থেকে পলায়ন করা
'
রণকৌশল হিসাবে কোন সৈনিক অথবা মুজাহিদদের বিচ্ছিন্ন কোন দল মূল দলের সাথে মিলিত হবার জন্য শত্রু বাহিনীর সাথে যুদ্ধ ছেড়ে ময়দান থেকে পিছিয়ে আসলে কোন গুনাহ নেই। তবে প্রতিপক্ষ মুসলিম বাহিনীর দ্বিগুণের অধিক না হলে তাদের প্রতিহত না করে পালিয়ে আসা কবীরা গুনাহ। 
'
ومن يؤلهم يومئذ دبره الا متحرفا لقتال او متحيزا الى فئة فقد باء بغضب من الله ومأواه جهنم وبئس المصير- 
الانفال:  ١٦. 
'
আর যে ব্যক্তি সেদিন তাদের থেকে পশ্চাদপসরণ করবে, অবশ্য যে লড়াইয়ের কৌশল পরিবর্তন কল্পে কিংবা যে নিজ সৈন্যদের নিকট আশ্রয় নিতে আসে সে ব্যতীত- অন্যরা আল্লাহর গজব সাথে নিয়ে প্রত্যাবর্তন করবে। আর তার ঠিকানা হল জাহান্নাম। বস্তুর সেটা হল নিকৃষ্ট অবস্থান। 
আনফাল- ১৬॥ 
'
হযরত আবু হুরাইরা রা থেকে বর্ণিত, রাসূল সা বলেন: 

اجتنبوا السبع الموبقات، قالوا وما هن يا رسول الله؟ قال:
١- الشرك بالله
٢- والسحر
٣- وقتل النفس التي حرم الله الا بالحق
٤- واكل الربا 
٥- واكل مال اليتيم 
٦- والتولى يوم الزحف 
٧- وقذف المحصنات الغافلات المؤمنات .
'
যে সাতটি সর্বনাশা কবিরা গুনাহ থেকে বিরত থাক, জিজ্ঞেস করা হলো, হে আল্লাহর রাসূল সেগুলো কী? তিনি বললেন: 
১. আল্লাহর সাথে শিরক করা
২. যাদু করা 
৩. অন্যায় ভাবে কাউকে খুন করা
৪. সুদ খাওয়া
৫. ইয়াতিমের মাল আত্বসাত করা 
৬. যুদ্ধের ময়দান থেকে পলায়ন করা
৭. সতী মুসলিম নারীর উপর অপবাদ দেয়া। 

বুখারী-মুসলিম॥ 
'
হযরত ইবনে আব্বাস রা বলেন,
 ان يكن منكم عشرون صابرون يغلبوا مائتين . 

যদি তোমাদের মধ্যে বিশ জন ধৈর্যশীল ব্যক্তি থাকে, তবে তারা দু'শ জনের উপর বিজয়ী হবে। 
'
এ আয়াত যখন নাযিল হয়, আল্লাহ তখন নির্দেশ দিলেন, মুসলিম বাহিনীর বিশ জন শত্রু বাহিনীর দু'শ জনের মোকাবিলা করতে গিয়ে কেউ পালাতে পারবে না। 
'
অতঃপর এ আয়াত অবতীর্ণ হল: 
الان خفف الله عنكم وعلم أن فيكم ضعفا فان يكن منكم الف يغلبوا الفين باذن الله والله مع الصابرين. 
'
আল্লাহ পাক এখন তোমাদের উপর ভার লাগব করে দিয়েছেন এবং তিনি জানেন, তোমাদের মধ্যে কিছু দুর্বল লোক রয়েছে। কাজেই তোমাদের মধ্যে যদি দৃঢ় মনের একশ লোক থাকে, তবে তোমরা দুইশ জনের উপর জয়ী হবে। আর যদি তোমরা এক হাজার হও, তবে আল্লাহর হুকুম অনুযায়ী দুই হাজারের উপর বিজয়ী হবে। বস্তুত আল্লাহ ধৈর্যশীলদের সাথে রয়েছেন। 
'
ফলে এ আয়াত নাজিল করে আল্লাহ পাক নির্দেশ দিলেন, একশ মুসলিম সৈন্য, শত্রু বাহিনীর দু'শ জনের মোকাবিলা করা অবস্থায় কারো পলায়ন করা জায়েয নেই। 
الكبائر.

৩২৭

কোন তথ্যসূত্র নেই

আপনার জন্য প্রস্তাবিত

ইসলামিক ফাউন্ডেশন

To preach and propagate the values and ideals of Islam, the only complete code of life acceptable to the Almighty Allah, in its right perspective as a religion of humanity, tolerance and universal brotherhood and bring the majority people of Bangladesh under the banner of Islam

অফিসিয়াল ঠিকানা: অফিসিয়াল ঠিকানা : ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ, আগারগাঁও, শের-এ- বাংলা নগর, ঢাকা -১২০৭